Home / রাজনীতি / আবরার দেশের জন্য কথা বলতে চেষ্টা করেছিল-ববি হাজ্জাজ ।।

আবরার দেশের জন্য কথা বলতে চেষ্টা করেছিল-ববি হাজ্জাজ ।।

অনলাইন ডেস্ক:  বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানব বন্ধন করে এনডিএম এর ছাত্র সংগঠন জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক ছাত্র আন্দোলন,কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ।

বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানব বন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,এনডিএম চেয়ারম্যান জননেতা ববি হাজ্জাজ,মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী খায়ের,মোমিনুল আমিন,যুগ্ম মহাসচিব-এনডিএম,লায়ন নুরুজ্জামান হীরা-দপ্তর সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় সভাপতি যুব আন্দোলন-এনডিএম,মোঃ মাসুদ রানা জুয়েল-সাধারণ সম্পাদক ছাত্র আন্দোলন প্রমুখ সহ অঙ্গসংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানব বন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এনডিএম চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ বলেন,আজকের ছাত্রলীগ নব্য রাজাকার না,তারা নব্য হানাদার বাহিনী।আজকে দেশের সবচেয়ে বড় শত্রু এই ছাত্রলীগ,যুবলীগ,নৌকালীগের ছত্রচ্ছায়ায় যারা আছে,তারা সবাই।অগণতান্ত্রিক আওয়ামী লীগ সরকার দেশব্যাপী লেলিয়ে দিয়েছে তরুণদের।

এনডিএম চেয়ারম্যান বলেন,বুয়েট এই দেশের সর্বোচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের একটা।এখানকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পর্যন্ত এমনভাবে বিষাক্ত করেছে যে,এরা দেশের জন্য দাঁড়ায় তো না-ই,দেশের জন্য কেউ আওয়াজ করলে নব্য হানাদার বাহিনী হয়ে পিশাচের মতো তার ওপর ঝাপিয়ে পড়ে।আবরার দেশের জন্য কথা বলতে চেষ্টা করেছিল।তাকে দাঁড়াতে দেয় নাই।নির্মম অত্যাচারের পর আবরার প্রাণ হারিয়েছে।১৯৭১ সালে এই দেশে যে হানাদার বাহিনী অত্যাচার করেছিল,তারাও এতবড় সাহস করতে পারে নাই,আজকে এই ছাত্রলীগ যে সাহস করে স্কুল,কলেজ,বিশ্ববিদ্যালয়ে আমাদের আগামী বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করে যাচ্ছে।১৯৭১ সালে যে বুদ্ধিজীবীদের আমরা বলিদান দিয়েছিলাম,সেই তালিকা কিচ্ছু না ছাত্রলীগের হাতে যে বলিদান দিতে হচ্ছে।ভারতের সঙ্গে চুক্তির পর চুক্তি করে যাচ্ছি,একটা চুক্তিতেও আমরা কিছু পাই না।আমরা শুধু দিয়েই যাই।ফেনী নদীর চুক্তি নিয়ে আবরার ছোট্ট একটা লেখা লিখেছিল।

তিনি বলেন,আমাদের,আবরারের ভারতকে পানি দিতে আপত্তি ছিল না।কিন্তু পানি দেয়ার আগে দেশের ১৭ কোটি মানুষের পানির কথা চিন্তা করা হলো না কেন।ফেনীর পানি দিতে অসুবিধা নাই,কিন্তু তিস্তার পানি চাইতে আমরা কেন ভয় করি। আওয়ামী লীগ কি ১৭ কোটি বাংলাদেশির সরকার,নাকি মোদিবাহিনী,আরএসএসের মুসলমানহানি করার তাণ্ডববাহিনীর সরকার।২০১৮ সালে নির্বাচনকে লুট করেছিল আওয়ামী লীগ।আমি মানি না,আওয়ামী লীগ এই দেশের সরকার,মানি না আওয়ামী লীগের সংসদ,মানি না আওয়ামী লীগের মন্ত্রিসভা।

সরকারের কঠোর সমালোচনা করে এনডিএম’র যুগ্ম মহাসচিব মোমিনুল আমিন বলেন,সারা বাংলাদেশকে আপনারা কবরস্থান বানিয়ে রেখেছেন,বাংলাদেশের মানুষের কাছে এবং কেয়ামতের ময়দানে হিসাব দিতে তবে,পার পাবেন না, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মাদার অফ হিউমেনিটি নিয়েছেন-আজকে রোহিঙ্গারা গলার কাটা হয়েছে,ভারতে গিয়েছেন চেহারা দেখানোর জন্য অথচ আসামের নাগরিক পন্থিনিয়ে কোনো কথা বলেননাই,যাহারা ভারতের নামে রোহিঙ্গাদের মতো বাংলাদেশে আসে তক্ষন আপনারা কি করবেন ? আপনাদের ছাত্রলীগকে সামলান,বাংলাদেশের ছাত্র সমাজ সাধারণ জনতা যদি জেগে উঠে,ছাত্রলীগ,আওয়ামীলীগ পালাবার পথ পাবেনা।

এনডিএম’র দপ্তর সম্পাদক ও যুব আন্দোলন কেন্দ্রীয় সভাপতি লায়ন নুরুজ্জামান হীরা বলেন,বাংলাদেশ সৃষ্টির লগ্ন থেকে মাঠে ময়দানে থেকে এদেশের সবকিছু উদ্ধার করে ছিল,অথচ আজকে সন্ত্রাসীলীগের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ মানুষ খুনের লিগে পরিণত হয়েছে,তিনি ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধের দাবি জানান।

About admin

Check Also

আগামীকাল যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে-ওবায়দুল কাদের।।

অনলাইন ডেস্ক :     আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *