Home / রাজনীতি / আমাকে ও আমার ছেলেকে হত্যা করতে চায়-আবদুল কাদের মির্জা।।

আমাকে ও আমার ছেলেকে হত্যা করতে চায়-আবদুল কাদের মির্জা।।

অনলাইন ডেস্ক :    নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা মন্তব্য করে বলেছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের,তার স্ত্রী ইসরাতুন্নেসা কাদের,একরামুল করিম চৌধুরী ও নিজাম হাজারী আমাকে ও আমার ছেলেকে হত্যা করতে চায়।

তার ফেইসবুক আইডিতে শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার সময় মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় এমন একটি পোস্ট।

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ফেসবুকে লিখেছিলেন,ওবায়দুল কাদের, তার স্ত্রী ইসরাতুন্নেসা কাদের,সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী ও সাংসদ নিজাম হাজারীর নির্দেশে সন্ত্রাসী মিজানুর রহমান বাদল, ফখরুল ইসলাম রাহাত,আজম পাশা রুমেল,বাসস্ট্যান্ডের চাঁদাবাজ সবুজ,টেকের মাদক সম্রাট সবুজ,মাহবুবুর রশিদ মঞ্জু, কচি,খিজির হায়াত,আরিফ,আলাল,ঢাকার চাঁদাবাজ জুয়েল,ভূমি দস্যু শাহিন,টাকা চোর রিমন,সন্ত্রাসী কানা রাজ্জাক,দাগনভুঁঞার সন্ত্রাসী জহিরুল ইসলাম তানভীর, রবেন্স,রনী,লিংকন,রিয়াদ এরা আমাকে ও আমার সন্তানকে হত্যার জন্য সক্রিয় ভাবে মাঠে নেমেছে। আপনারা আমার ও আমার সন্তানের জন্য দোয়া করবেন।

আবদুল কাদের মির্জা,মেয়র,বসুরহাট পৌরসভা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল এ বিষয়ে বলেন, আমাদের প্রিয় নেতা ওবায়দুল কাদের ও তার সহধর্মিনীসহ অন্যান্য নেতাদের বিরুদ্ধে এমন মিথ্যাচারের আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।ওবায়দুল কাদের সন্ত্রাসী লালন করেনা।তাছাড়া কোন জনবিচ্ছিন্ন ও নৈতিকতা বিসর্জিত নেতাকে হত্যা করে আমরা পাপের ভাগী হওয়ার মতো বোকা নই।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোটভাই বসুরহাটের মেয়র কাদের মির্জার সাথে স্থানীয় উপজেলা আওয়ামী লীগের দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলে আসছে।এর জের ধরে সংঘর্ষে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।সম্প্রতি কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কাছে কাদের মির্জার বিরুদ্ধে নালিশ করে এসেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা।ছবি-তথ্য সংগৃহীত

About admin

Check Also

ঈদের দিনও বিষোদগারের রাজনীতি পরিহারে ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি-তথ্যমন্ত্রী।।

অনলাইন ডেস্ক :    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মহানুভবতায় খালেদা জিয়া কারাগারের বাইরে ঈদ উদযাপন করেছেন।কিন্তু ঈদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *