Home / অর্থনীতি / ট্যানারি মালিকরা কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়া কেনা শুরু করেছেন ।।

ট্যানারি মালিকরা কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়া কেনা শুরু করেছেন ।।

অনলাইন ডেস্ক: ট্যানারি মালিকরা কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়া কেনা শুরু করেছেন।তবে তারা শুধু ভালোভাবে লবণ দিয়ে সংরক্ষিত কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়াই কিনছেন।গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আজ শনিবার বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত উল্লাহ।তিনি জানিয়েছেন এজন্য সরকার নির্ধারিত মূল্য দেওয়া হচ্ছে।ট্যানারির মালিকরা আগামী দুই মাস চামড়া সংগ্রহ করবেন সরকার নির্ধারিত মূল্যে।বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ট্যানারি মালিক,আড়তদার ও কাঁচা চামড়া সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বসবে আগামীকাল।বর্তমান চামড়ার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হবে সেখানে।

দেশের বিভিন্ন স্থানে লাখ লাখ কোরবানির পশুর চামড়া নষ্ট হয়ে গেছে সম্প্রতি চামড়ার দরপতনের পর বিক্রি না হওয়ায়। এছাড়া  তথ্য পাওয়া গেছে অনেক স্থান থেকেই চামড়া মাটির নিচে পুতে ফেলার।এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিপুলসংখ্যক মাদরাসা ও এতিমখানা,যারা কোরবানির দানকৃত চামড়া সংগ্রহ করে খরচ নির্বাহ করতো।সরকার কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত নেয় চামড়ার ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ।তবে দেশীয় শিল্প রক্ষায় কাঁচা চামড়া রফতানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান ট্যানারি মালিকরা।ট্যানারি মালিকরা চাপের মুখে কাঁচা চামড়া সংগ্রহের তারিখ এগিয়ে এনেছেন।বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মফিজুল ইসলাম এই বিষয়ে বলেছেন,কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা হয়নি। তবে ঢালাওভাবে না দিয়ে কেস টু কেস ভিত্তিতে কাঁচা চামড়া রপ্তানিতে অনুমোদনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।যদি চামড়ার বাজারে ন্যায্যমূল্য ফিরে আসে তাহলে হয়তো কাঁচা চামড়া রপ্তানির অনুমোদন দেওয়া হবে না।কাঁচা চামড়া রপ্তানির অনুমোদন দেওয়া হবে বিক্রেতারা যদি চামড়ার ন্যায্যমূল্য না পায় তাহলে।

(বি:দ্র: ফাইল ছবি-তথ্য সংগ্রহকরা)

About admin

Check Also

পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ ২০২১ সালে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও সময় লাগবে ২০২২ সাল পর্যন্ত-অর্থমন্ত্রী।।

অনলাইন ডেস্ক :     অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানিয়েছেন,বহুল প্রত্যাশিত পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ ২০২১ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *