Home / জাতীয় / নিখোঁজ ভাগনের সন্ধান চেয়ে সংবাদ সম্মেলন-সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী,সোহেল তাজ…

নিখোঁজ ভাগনের সন্ধান চেয়ে সংবাদ সম্মেলন-সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী,সোহেল তাজ…

অনলাইন ডেস্ক: সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ-এক সপ্তাহ ধরে নিখোঁজ ভাগনের সন্ধান চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।গতকাল সোমবার দুপুরে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলন সোহেল তাজ ছাড়াও অপহূত সৈয়দ ইফতেখার আলম সৌরভের বাবা সৈয়দ মোহাম্মদ ইদ্রিস আলম ও মা সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান উপস্থিত ছিলেন,রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে।সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীসংবাদ সম্মেলনে বলেন,বাংলাদেশের নাগরিক আমরা।এ অবস্থা আমরা আশা করতে পারি না কোনোভাবেই,গুম কিংবা অপহূত হোক কোনো নাগরিক।আমার ভাগনেআজকে,হয় তো আপনার ভাই হতে পারে কালকে। হয়তো আপনার সন্তান হতে পারে আরেক দিন।মুখ্য বিষয় নয় কার কী পরিচয়।কারো জন্য কাম্য নয় এ ধরনের ঘটনা। কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।ভাগনেকে ফিরে পাব আশা করছি।সৈয়দ ইফতেখার আলম সৌরভ অপহূত হন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে থেকে গত ৯ জুন।বেসরকারি ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির গণযোগাযোগ বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন সৌরভ।তাঁর বাবা থানায় সাধারণ ডায়েরি/জিডি করেন ওই দিন রাতে।

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ শনিবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দেওয়া এক পোস্টে তাঁর ভাগনেকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন।সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান বলেন-লিখিত বক্তব্যে,আমার হারানো ছেলেকে ফিরে পাওয়ার জন্য আপনাদের সামনে উপস্থিত হয়েছি আমি একজন মা হিসেবে।আমার ছেলেকে ফিরে পাওয়ার জন্য আপনাদের/সাংবাদিক মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি।সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান বলেন-সৌরভের তৈরি সিনেমা বেঙ্গলী বিউটি  দেশ-বিদেশে খ্যাতি অর্জন করে ২০১৭ সালে। সওদা নামে এক মেয়ের সঙ্গে পরিচয় ও যোগাযোগ শুরু হয় সে সময়।মোবাইল ফোনেই বিবাহ সম্পন্ন করার প্রস্তাব দেয় পর্দাশীল পরিবারের সদস্য সওদা।নিজের প্রাণনাশের হুমকি দেয়,তাতে রাজি না হলে।পরিবার সওদাকে অন্যত্র বিয়ে দেয় এর মধ্যে সওদার অমতে।২০১৮ সালেই ভেঙে যায় সে বিয়ে।সওদার বাবা গার্মেন্টস ব্যবসায়ী সালেহ আজাদ চৌধুরী তার ছেলেকে দোষারোপ করেন এরপর থেকে।প্রাণনাশের হুমকি দেন সৌরভসহ আমাদের।বনানীর বন্ধুর বাসা থেকে ৱ্যাব পরিচয়ে ৮/১০ জন আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করে চোখ বেঁধে সৌরভকে তুলে নিয়ে যায় ২০১৮ সালের ১৬ মে।যাওয়ার সময় অপহরণকারীরা ওই অ্যাপার্টমেন্টের সিসি ক্যামেরারা হার্ডডিস্ক খুলে নিয়ে যায় প্রতিবাদ করলে।তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় পরদিন।জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ সওদা সম্পর্কে তথ্য নেয় ছেড়ে দেওয়ার আগে।তাকে চাকরির প্রলোভন দেখায় তারা। চায় কাগজপত্র।ঘটনার পর সৌরভকে ৱ্যাব সদর দপ্তরে ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ ও ভয়ভীতি দেখানো হয় চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি।তথ্য জানতে চাওয়া হয় মোবাইলের সব ডাটা ডিলিট করে সেখানেও সওদার ব্যাপারে।

সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান-সংবাদ সম্মেলনে বলেন,বনানী থানার ওসি ফরমান আলী সৌরভকে ডেকে নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন চলতি বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি।তাকে বিভিন্ন মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেন ওসি।গোয়েন্দা সংস্থার দুই কর্মকর্তার সঙ্গে ব্র্যাক সেন্টারের সামনে এক রেস্টুরেন্টে বৈঠক হয় এক সপ্তাহ পর।সৌরভের ঘটনা তদন্ত করার কথা জানানো হয় সেখানে।সওদার ব্যাপারে জানতে চাওয়া হয় সেখানে।ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানোর কথা বলে চলে যায় প্রাপ্ত তথ্য।ৱ্যাব ফোন করে গত ৮ জুন দুপুর ১১-১২টার দিকে।তৈরি করতে বলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র।সৌরভকে চট্টগ্রাম মিমি সুপার মার্কেটের আগোরার সামনে থেকে তুলে নেওয়া হয় ওই দিন বেলা ৩টার দিকে। সৌরভ এরপর আর ফিরে আসেনি।সৌরভকে ফিরে পেতে চাই আমরা।অপহরণকারীরা কি প্রভাবশালী,ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে তাদের পরিচয় প্রকাশ করতে চেয়েছিলেন,এমন প্রশ্নের জবাবে সোহেল তাজ বলেন-সংবাদ সম্মেলনে,আইনশৃঙ্খলা বাহিনী,লোকাল পুলিশ যোগাযোগ করছে আমাদের সঙ্গে।সৌরভের ফোনে একটি সংস্থার কর্মকর্তার নম্বর থেকে কল গেছে।আমরা জানতে পেরেছি সেটা।আমাদের একটাই লক্ষ্য এ অবস্থায়,ফিরে পাওয়া আমাদের ছেলেকে।হয়ে গেছে আট দিন।ফিরে পাওয়ার চেষ্টায় আছি সৌরভকে।

(বি:দ্র:ছবি-তথ্য সংগ্রহকরা)

About admin

Check Also

শিক্ষার্থীদের ডিজিটালি ক্লাস নিতে একটি সুনির্দিষ্ট টেলিভিশন চ্যানেল চালুর পরিকল্পনা-শিক্ষামন্ত্রী।।

অনলাইন ডেস্ক :    শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি সারা বছর শিক্ষার্থীদের ডিজিটালি ক্লাস নিতে একটি সুনির্দিষ্ট টেলিভিশন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *