Home / বিবিধ / বরগুনা পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়েছেজিজ্ঞাসাবাদের জন্য,আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে***

বরগুনা পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়েছেজিজ্ঞাসাবাদের জন্য,আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে***

অনলাইন ডেস্ক: বরগুনা পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়েছেজিজ্ঞাসাবাদের জন্য,আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে।তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরও সঙ্গে এসেছেন তাকে পুলিশ লাইনে নেওয়া সময়।তথ্যমতে,জানাযায়-বরগুনার পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে  জানান,পুলিশ লাইনে আনা হয়  নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনা পৌরসভার মাইঠা এলাকার নিজ বাসা থেকে মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে।তার বক্তব্য রেকর্ড ও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তাকে।তাকে এখন পর্যন্ত আটক বা গ্রেফতার করা হয়নি এই মামলায়।

তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরও সঙ্গে এসেছেন মিন্নিকে পুলিশ লাইনে আনার সময়।তিনি জানান,মিন্নিকে পুলিশ লাইনে আনা হয়েছে রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িত এক অভিযুক্তকে শনাক্ত করার জন্য।মিন্নিকে আবার বাড়ি নিয়ে যাওয়া হবে শনাক্তকরণ শেষ হলে।নিহত রিফাতের পিতা আবদুল হালিম দুলাল শরীফশনিবার (১৩ জুলাই) রাত আটটায় বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন,রিফাত শরীফ হত্যার ঘটনায় রিফাতের স্ত্রী মিন্নিকে আইনের আওতায় আনার দাবি করে।এই হত্যা মামলার ১ নম্বর সাক্ষী মিন্নি।তিনি ১০টি যুক্তি তুলে ধরে লিখিত বক্তব্য রাখেন সম্মেলনে এই হত্যাকাণ্ডে মিন্নি জড়িত ছিল এমন সন্দেহে।মিন্নি তাকে জড়িয়ে শ্বশুরের দেওয়া বক্তব্যের।মিন্নি ‘বানোয়াট ও মনগড়া’বলেছেন-স্বামী রিফাত হত্যায় তার সম্পৃক্ততা আছে দাবি করে শ্বশুর দুলাল শরীফের দেওয়া বক্তব্যকে।এই কথা বলেন মিন্নি তার বাবার বাড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনে রবিবার (১৪ জুলাই) দুপুরে।

(বি:দ্র: ছবি-তথ্য সংগ্রহকরা)

About admin

Check Also

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের আবেদন যেভাবে করবেন।।

অনলাইন ডেস্ক :     গত মাসে প্রকাশিত হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) অধীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *