Home / রাজশাহী / বাঘায় ছাত্রলীগ নেতার মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানবন্ধন ।।

বাঘায় ছাত্রলীগ নেতার মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানবন্ধন ।।

সংবাদদাতা: মোঃ সাইফুল ইসলাম রায়হান,চারঘাট রাজশাহী।

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহীর বাঘায় মানববন্ধন কর্মসূচির মাধ্যমে বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগের অন্যতম সদস্য, শাহ্দৌলা ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ নেতা  জাহিদ হাসান ও এলিট সরকারে বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি করা হয়েছে। উপজেলা ছাত্রলীগের ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচিতে এই দাবি জানানো হয়। সোমবার (২-৯-১৯) উপজেলার পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড এলাকার চৌরাস্তা মোড়ে বাজুবাঘা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সজল মাহমুদ শিমুলের নের্তৃত্বে এই মানববন্ধ কর্মসূচি পালন করা হয়।

বক্তব্যকালে সজল মাহমুদ শিমুল বলেন, শাহদৌলা সরকারি কলেজের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র শামশুল ইসলাকে মারধরের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় জাহিদ হাসানকে সন্ত্রাসী হিসেবে অভিহিত করেছেন। কিন্তু এই জাহিদের নেতৃত্বই বার বার বিভিন্ন ধরনের ন্যায্য দাবী আদায় হয়েছে কলেজের সাধারণ ছাত্র ছাত্রীদের। জাহিদ একজন প্রতিবাদি ছাত্রনেতা হিসেবে  দলের ও দলের কর্মীদের জন্য রাজপথে নেমে এসেছে। মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব শাহরিয়ার আলম এমপির আস্থাভাজন বিশ্বস্ত ছাত্র নেতাকে সন্ত্রাসী উক্তি ব্যবহার করায় এর প্রতিবাদ জানিয়ে উদ্দেশ্য প্রনোদিত মামলা থেকে অনতিবিলম্বে নাম প্রত্যাহারের দাবি করেন এই ছাত্র নেতা। মামলার পশ্চাতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ও সাধারণ সম্পাদকের স্বার্থন্বেষী উদ্দেশ্য বলে উপজেলা ছাত্রলীগের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির বিপরীতে নতুন কমিটি গঠনের দাবি করা হয়। উপস্থিত ছিলেন,কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সদস্য হেলাল উদ্দীন,সুমন আহমেদ,পৌর ছাত্রলীগের সদস্য াাজমল হোসেন,বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের ক্রীড়া সম্পাদক বন্ধন পান্ডে,ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদিকা শবনব মোস্তারি মিষ্টি, বঙ্গবন্ধু ¯œৃতি পরিষদের তথ্য সম্পাদক সোহাগ সেখ প্রমুখ। তারা ছাত্রলীগের ব্যানারে  ব্যবহার করে

 এবিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নাজমুল হোসেন বলেন, উপজেলা ছাত্রলীগের কোন নেতা কিংবা সদস্য মানববন্ধন কর্মসূচিতে ছিলেন না। এছাড়া মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে তারা জড়িত নন। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি(ভারপ্রাপ্ত) সােহানুর রহমান সোহাগ বলেন,পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব শাহরিয়ার আলম এমপির  ছবি সংবলিত ছাত্রলীগের ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করার কথা শুনেছেন। তবে এ বিষয়ে তারা আগে কিছুই জানতেননা।

 উল্লেখ্য, গত ২৬ আগষ্ট কলেজ চত্বর থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে উপজেলা সদরে শাহদৌলা সরকারি কলেজের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র শামশুল ইসলামকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখন করে বহিরাগতরা। বাঘা বলে জানা গেছে।  উপজেলার দেবত্ত বিনোদপুর গ্রামের ইজদার রহমানের ছেলে আহত শামশুল ইসলাম বাদি হয়ে কলেজ শাখার সাবেক নেতা সবুজ, উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য জাহিদ ও এলিটের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে বাঘা থানায় মামলা করেছেন। এদিকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আশিক জাভেদ মুঠোফোনে সাংবাদিককে জানান, জাহিদ হাসান বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির বিপরীতে নতুন কমিটি চেয়ে বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরাগ ভাজন হয়। যার ফলে তাকে মামলায় ফাসিয়ে দেওয়া হয়েছে। ছাত্রলীগের আদর্শিক সৈনিকদের রক্ষা সহ অপপ্রারকারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য দলীয় সংশ্লিষ্ট নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন তিনি।

About admin

Check Also

রাজশাহীর বাঘায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বাড়ছে ঝুঁকি।।

মোঃ সাইফুল ইসলাম রায়হান-রাজশাহী। অনলাইন ডেস্ক :     রাজশাহী বাঘা স্বাস্হ্যবিধি না মানায় বাড়ছে ঝুঁকি। দ্বিতীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *