Home / বিবিধ / বাড্ডা তাছলিমা বেগম রেনু হত্যার ঘটনায় ৪ জন গ্রেফতার-গণপিটুনিতে নেতৃত্বদানকারী যুবক এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে ।।

বাড্ডা তাছলিমা বেগম রেনু হত্যার ঘটনায় ৪ জন গ্রেফতার-গণপিটুনিতে নেতৃত্বদানকারী যুবক এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে ।।

অনলাইন ডেস্ক: পুলিশ আরো একজনকে গ্রেফতার করেছে বাড্ডায় ছেলেধরা গুজবে গণপিটুনিতে তাছলিমা বেগম রেনু হত্যার ঘটনায়। তার নাম বাচ্চু (২৫)।গ্রেফতার করা হলো এই নিয়ে চারজনকে।গণপিটুনিতে নেতৃত্বদানকারী যুবক এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছেন।রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে গ্রেফতার বাচ্চুসহ চারজনকে সোমবার সকালে।এর আগে রবিবার রাতে গ্রেফতার করা হয় বাপ্পী,শাহীন ও জাফরকে।তথ্যমতে,জানাযায়-বাড্ডা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন,সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে এই চারজনের বিরুদ্ধে।এখনো আটক করা যায়নি গণপিটুনির ঘটনার নেতৃত্বদানকারী হৃদয় নামে যুবককে।বাড্ডা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন,উত্তর বাড্ডায় তার বাবা হানিফ আলীর সবজির দোকানে কাজ করেন হৃদয়।তিনি পড়াশুনাও করেননি।বখে যাওয়া যুবক হিসাবে পরিচিত হৃদয় এলাকায় আগে থেকে।

গণপিটুনির ভিডিওতে দেখা যায়,তাছলিমাকে মারছে বাড্ডার অল্প কয়েকজন যুবকই।বাকিরা দেখছে।মোবাইলে ভিডিও করছে আবার কেউ কেউ।উপর্যুপরি লাথি দেওয়া হয় লাঠিপেটার পর।ছবির যুবকটি তাসলিমা নিস্তেজ হয়ে পড়ে থাকলেও তাকে কাঠের দণ্ড দিয়ে পেটাতে থাকে।পেটানো হয় তার হা-পা,বুকের উপর। খোঁচানো হয় হাতে।এই ঘটনা ঘটে রাজধানীর বাড্ডায় গত শনিবার সকালে।বাড্ডা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন নিহতের বোনের ছেলে নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে।অজ্ঞাত ৪ থেকে ৫শ জনকে আসামি করা হয় মামলায়।নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন,লেখাপড়া শেষ করে তাছলিমা বেগম রেনু চাকরি করেছিলেন আড়ং,ব্র্যাকের মতো প্রতিষ্ঠানে, পড়িয়েছিলেন স্কুলেও।ঘরেই কাটাচ্ছিলেন সময় বিবাহ বিচ্ছেদের পর।স্কুলে সন্তানদের ভর্তির খোঁজ নিতে গিয়েছিলেন তাসলিমা বেগম রানু ঘটনার দিন।গণপিটুনি দেওয়া হয় সেখানে তাকে ছেলেধরা গুজবে। (বি:দ্র: ছবি-তথ্য সংগ্রহকরা)

About admin

Check Also

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের আবেদন যেভাবে করবেন।।

অনলাইন ডেস্ক :     গত মাসে প্রকাশিত হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) অধীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *