Home / খেলাধুলা / মুশফিকের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের জয়।।

মুশফিকের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের জয়।।

অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশ তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল।মুশফিকের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের জয়ের পথ সুগম হয়।বাংলাদেশ ভালো অবস্থায় যায় মুশফিক আর সৌম্যের ব্যাটে ভর করে।সোম্য আউট হওয়ার পর এই জয় আসে মুশফিক আর মাহমুদউল্লাহ ব্যাটিংয়ে।তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে ১৪৯ রানের টার্গেট দেয় ভারত।তারা টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রান সংগ্রহ করে।

শফিউল ইসলাম ইনিংসের প্রথম ওভারেই ভারতীয় ক্রিকেট দলের ওপেনার রোহিত শর্মাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন। বাঁচতে পারেননি রোহিত রিভিউ নিয়েও।তিনি ফিরে যান দলীয় ১০ রানে ব্যক্তিগত ৯ রান করে।রোহিতের পর লোকেশ রাহুলকে সাজঘরে ফেরান আমিনুল ইসলাম বিপ্লব।১৭ বলে ১৫ রান করে মাহমুদউল্লাহর হাতে ক্যাচ দেন তিনি।বিপ্লবের হাওয়ায় ভাসানো বল তুলে মারতে গিয়ে লং অফে ক্যাচ দেন ১৩ বলে ২২ রান করা শ্রেয়াশ আইয়ার।অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাঈম শেখ সীমানার কাছে দারুণ ক্যাচ ধরেন।শ্রেয়াশ আইয়ারের পরে রান আউটে কাটা পড়েন শেখর ধাওয়ান।  ধাওয়ান ওপেনিং নেমে হাফ সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন।কিন্তু তিনি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বলে দুই রান নিতে গিয়ে আউট হন।

আফিফ বড় ধাক্কা দেন অভিষিক্ত দুবেকে।দুর্দান্ত এক ক্যাচে আফিফ ফেরান ভারতের এই ব্যাটসম্যানকে। শফিউলকে উড়াতে গিয়ে নাঈমের হাতে ক্যাচ দেন রিশাভ পান্ত।পান্ত সাজঘরে ফেরেন ২৬ বলে ২৭ রান করে।অপরাজিত থাকেন ওয়াশিংটন সুন্দর ১৪ ও কুনাল পান্ডে ১৫ রানে।শফিউল ইসলাম বাংলাদেশের হয়ে ৪ ওভারে ৩৬ রান খরচায় কোনো উইকেট পাননি।মোস্তাফিজ ২ ওভারে ১৫ রান দিয়ে উইকেটশূন্য থাকেন।৩ ওভারে আমিনুল ২২ রান দিয়ে তুলে নেন দুটি উইকেট।সৌম্য সরকার ২ ওভারে ১৬, মোসাদ্দেক ১ ওভারে ৮,মাহমুদউল্লাহ ১ ওভারে ১০ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি।আল আমিন ৪ ওভারে ২৭ রান খরচায় কোনো উইকেট পাননি।৩ ওভারে ১১ রান দিয়ে পান একটি উইকেট আফিফ হোসেন।

ওপেনার লিটন দাস (৭) ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৮ রানের মাথায় বিদায়।এরপর সৌম্য সরকার এবং মোহাম্মদ নাঈম জুটি গড়েন।তারা ৪৬ রান যোগ করেন দ্বিতীয় জুটিতে।নাঈম বিদায় নেন ব্যক্তিগত ২৬ রান করে।যুভেন্দ্র চাহালের বলে বিগ শটে শিখর ধাওয়ানের হাতে ধরা পড়েন ২৮ বলে দুই চার আর একটি ছক্কা হাঁকানো এই অভিষিক্ত।তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৬০ রান যোগ করেন সৌম্য সরকার এবং মুশফিকুর রহিম।ব্যক্তিগত ৩৯ রানে বিদায় নেন সৌম্য।খলিল আহমেদের বলে বোল্ড হওয়ার আগে সৌম্য ৩৫ বলে এক চার আর দুই ছক্কায় তার ইনিংসটি সাজান।বাংলাদেশ তৃতীয় উইকেট হারায় ১৭তম ওভারে দলীয় ১১৪ রানের মাথায়।মুশফিক খলিল আহমেদকে টানা চারটি বাউন্ডারি হাঁকান ১৯তম ওভারে।টি-টোয়েন্টির ক্যারিয়ারে পঞ্চম ফিফটিও তুলে নেন।৪৩ বলে আটটি চার আর একটি ছক্কায় ৬০ রানে অপরাজিত থাকেন মুশফিক।৭ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন।ম্যাচটি শুরু হয় দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায়।এই ম্যাচের মধ্যদিয়ে অভিষেক হয়েছে মোহাম্মদ নাঈমের।

বি: দ্র: ছবি সংগ্রহকরা

About admin

Check Also

কাজী সালাহ্উদ্দিন চতুর্থবারের মতো বাফুফে সভাপতি নির্বাচিত।।

অনলাইন ডেস্ক :     কাজী সালাহ্উদ্দিন চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ১৩৫ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *