Home / রাজশাহী / রাজশাহীর বাঘায় গ্রেফতার আতঙ্কে ঘরছাড়া বিএনপি ।।

রাজশাহীর বাঘায় গ্রেফতার আতঙ্কে ঘরছাড়া বিএনপি ।।

সংবাদদাতা: মোঃ সাইফুল ইসলাম রায়হান,চারঘাট রাজশাহী।

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহীর বাঘায় গ্রেফতার আতঙ্কে ঘরছাড়া বিএনপি। সরকারি কাজে বাঁধা দেওয়ায়   পুৃলিশের দায়েরকৃত মামলায় গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে তারা। বাইশ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে বাঘা থানার এসআই সইবুর রহমান বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন।

 পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার পৌর সভার বাসিন্দা কামাল হোসেনের বাড়িতে সমাবেশ করছিল বিএনপি। সেই সমাবেশে ছিল পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রন আইনে দায়েরকৃত মামলায় ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী শামিম। খবর পেয়ে এসআই সইবুর রহমান ও এএসআই শাহ্আলম সমাবেশ থেকে উপজেলার বামনডাঙ্গা গ্রামের বাচ্চুর ছেলে শামিমকে আটক করে। পরে তাকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয় বিএনপির নেতা কর্মীরা।

 এঘটনার পর মঙ্গলবার রাতে এসআই সইবুর রহমান বাদি হয়ে সরকারি কাজে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগে বিএনপির ২২ জন নেতা কর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সাইদ চাঁদ, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য দেবাশীষ রায় মধু, জেলা বিএনপির যুগ্ন আহ্বাযক সাইফুল ইসলাম মার্শাল, যুগ্ন আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম, ও সদস্য সচিব বিশ্বনাথ,জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মামুনসহ উপজেলা,পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড বিএনপির নেতা কর্মীরা।

 মামলায় জড়িত আসামীদের নাম প্রকাশ না করার শর্তে,বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন,সরকারি কাজে বাঁধা দেওয়ার অপরাধে পুলিশের পক্ষ থেকে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। তবে বিএনপির জেলা উপজেলা কমিটির শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিরা মামলায় আসামী রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, শামীম রাজশাহী জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক। ২০১৮ সালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে কুটুক্তি ও অশ্লীল ছবি ছাড়ায় তার বিরুদ্ধে বাঘা থানায় পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করা হয়। গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে থাকায় তার বিরদ্ধে আদালত থেকে ওয়ারেন্ট জারি করা হয়।

About admin

Check Also

রাজশাহীর বাঘায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বাড়ছে ঝুঁকি।।

মোঃ সাইফুল ইসলাম রায়হান-রাজশাহী। অনলাইন ডেস্ক :     রাজশাহী বাঘা স্বাস্হ্যবিধি না মানায় বাড়ছে ঝুঁকি। দ্বিতীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *